শনিবার, মে ২১, ২০২২
Google search engine
HomeFeatureকাচঁপুরে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ আহত-১০

কাচঁপুরে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ \ আহত-১০

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার কাচঁপুর শিল্পাঞ্চল এলাকায় অবস্থিত ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গার্মেন্টেসের শ্রমিকরা বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে টায়ার জালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে অবরোধ করে। এতে দুই মহাসড়কের প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এসময় শ্রমিকদের ছত্তভঙ্গ করতে গেলে পুলিশের সাথে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে কমপক্ষে ১০ জন শ্রমিক মারাক্তক আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে ১০টা পযন্ত মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন শ্রমিকরা।

এদিকে গতকাল বুধবার বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পযন্ত কারখানার শ্রমিকরা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করলে পুলিশের সাথে শ্রমিকদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় শ্রমিকদের ছত্তভঙ্গ করতে পুলিশ ৫০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করেন। এতে পুলিশ সদস্যসহ কমপেক্ষ ২০ জন আহত হয়।

পুলিশ ও শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গ্রæপের শ্রমিকদেও চার মাসের বকেয়া বেতন-ভাতা বুধবার পরিশোধ করার প্রতিশ্রæতি কর্তৃপক্ষ দিলেও সময়মতোু পরিশোধ করেনি। তাই বেতন-ভাতার দাবিতে কারখানার শ্রমিকরা ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে টায়ার জালিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে অবরোধ করেন। এতে কাচঁপুর সেতুর দুপাশের ১০ কিলোমিটার এলাকা জুরে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এসময় শ্রমিকদের সাথে সমঝোতা করার চেষ্টা করলে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে প্রায় ৫০টি যানবাহন ভাঙচুর করেন। পরে পুলিশ পাল্টা ফাঁকা গুলি ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে ছত্তভঙ্গ করে দেয়।

ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গ্রæপের শ্রমিক লাল মিয়া, আয়শা ও খাজিদা বেগম বলেন, আমাদের চার মাসের বেতন-ভাতা বকেয়া রয়েছে। বুধবার সকালে মালিকপক্ষ পরিশোধ করার কথা দিলেও এখনো পরিশোধ করেনি। তাই বাধ্য হয়ে মহাসড়কে নেমেছি।

কাচঁপুর হাইওয়ে থানার (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, শ্রমিকদের দাবি নিয়ে মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা হচ্ছে। শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে আবারও শ্রমিকরা টায়ার জালিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে ছত্তভঙ্গ করতে গেলে তাদের সাথে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এসময় ৫০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ-অঞ্চল) শেখ বিল্লাল হোসেন বলেন, বকেয়া বেতনের দাবিতে কারখানার শ্রমিকরা দুই মহাসড়ক অবরোধ করে রেখেছিল। শ্রমিক ও মালিক পক্ষের সাথে সমঝোতা করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক পাঠিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

AllEscort