মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২
Google search engine
HomeFeatureবন্দরে ৫ ইউপির ফল প্রকাশ

বন্দরে ৫ ইউপির ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের মধ্যে সবটিরই ফলাফল পাওয়া গেছে। বেসরকারীভাবে ফলাফলে বন্দর ইউনিয়নে লাঙলের এহসানউদ্দিন, মদনপুরে এম এ সালাম, মুছাপুরে লাঙলের মাকসুদ হোসেন, কলাগাছিয়ায় লাঙলের দেলোয়ার ও ধামগড়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী কামাল হোসেন বিজয়ী হয়েছেন। ১১ নভেম্বর সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ শেষে রাতে ফলাফল ঘোষণার পরেই এলাকাতে মিছিল বের হয়।

জানা যায়, মদনপুর ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্র ৯টি ও ভোট কক্ষ ৪৬টি। পুরুষ ভোটার ৮ হাজার ৫০৬ জন এবং মহিলা ভোটার ৮ হাজার ৬ জন। এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে হেভিওয়েট ছিলেন দুইজন। তারা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান ও আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী গাজী এম এ সালাম এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী রুহুল আমিন। এর মাঝে শ্রমিক নেতা রুহুল আমিন বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় তাকে শ্রমিক লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদে ভোট কেন্দ্র ৯টি ও ভোট কক্ষ ৫৩টি। পুরুষ ভোটার রয়েছে ১১ হাজার ১৬৮ জন এবং মহিলা ভোটার ১০ হাজার ৫৩৩ জন। এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদের হেভিওয়েট আছেন দুই প্রার্থী। বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ও জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী মাকসুদ হোসেন এবং আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী মজিবুর রহমান। ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী মজিবুর রহমান নৌকা প্রতীক পেলেও তিনি দলের নেতাকর্মীদের একত্রিত করতে ব্যর্থ হয়েছেন। আর তাই আলোচনাতেও ছিলেন খুবই নগন্য।

বন্দর ইউনিয়নে মোট ভোট কেন্দ্র ১১টি ও ভোট কক্ষ ৬২টি। পুরুষ ভোটার রয়েছে ১২ হাজার ৬৬৯জন এবং মহিলা ভোটার ১২ হাজার ৩৮৭জন। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যন পদে লড়াই করেন দুইজন প্রার্থী। তারা হলেনÑবর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ও জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী এহসান উদ্দিন আহমেদ, আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী মোক্তার হোসেন।

কলাগাছিয়ায় ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্র ১৬টি ও ভোট কক্ষ ৯৫টি। পুরুষ ভোটার ছিল ১৯ হাজার ৩৩৮ জন,মহিলা ভোটার ১৮ হাজার ৬৫৯জন এবং মোট ৩৭ হাজার ৯৯৭জন। নির্বাচনে শুরু থেকেই বন্দরের কলাগাছিয়ায় উত্তেজনা বাড়ছিল। দুই প্রার্থী পাল্টাপাল্টি বক্তব্য প্রদান করে উত্তপ্ত করে রেখেছিল নির্বাচনী পরিবেশ। তার ওপর সাংসদ সেলিম ওসমানের বক্তব্য আরও গরম করে তোলে নির্বাচনী মাঠ। একদিকে সাংসদ সেলিম ওসমান সমর্থিত দেলোয়ার প্রধান ও অন্যদিকে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সমর্থিত কাজিম উদ্দিন। দুই প্রভাবশালীর লড়াই ক্রমাগত জমে উঠে কলাগাছিয়া জুড়ে।

ধামগড় ইউনিয়নে চমক দেখিয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী কামাল হোসেন। তিনি হারিয়ে দিয়েছেন নৌকার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদকে। ১১ নভেম্বর সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ শেষে রাতে ফলাফল ঘোষণার পরেই এলাকাতে মিছিল বের হয়। এর আগের রাতে ১০ নভেম্বর জাঙ্গাল কেন্দ্রে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এসময় প্রায় অর্ধশতাধিক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়েছে পুলিশ। আহত হয় তিন পুলিশ সদস্য।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক পাঠিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

AllEscort