মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২
Google search engine
HomeFeatureশহীদ শিল্পীগোষ্ঠীর গুণীজন সম্মাননা ২০২১ প্রদান

শহীদ শিল্পীগোষ্ঠীর গুণীজন সম্মাননা ২০২১ প্রদান

সময় পোস্টঃ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ন জয়ন্তী উপলক্ষে শহীদ শিল্পীগোষ্ঠীর উদ্যেগে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য এবছর থেকে ৭ বিভাগে সমাজের গুণীজনকে সম্মাননা ২০২১ প্রদান করা হয়। পদকগুলো হলো : মুক্তিযুদ্ধে, সমাজ সেবায়, সাংবাদিকতায়, শিক্ষায়, আইন পেশায়, সঙ্গীত এবং সাহিত্যে।

যারা পদক পেলেন: বীর মুক্তিযোদ্ধা লায়ন আকরাম হোসাইন মুক্তিযুদ্ধে, সমাজসেবায় ডাঃ মো: শহিদুল ইসলাম, শামীমা নাসরিন রুমী খান শিক্ষায়, আব্দুল আওয়াল সাংবাদিকতায়, আহমেদ ফকরুদ্দিন সাহিত্যে, সঙ্গীতে করিম হাসান খান, আইন পেশায় এ্যাড, ড. আবদুল আওয়াল।

সোমবার (১০জানুয়ারী২০২২) সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির সংগীত, আবৃত্তি ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে এক অনরাড়ম্বর অনুষ্ঠানে মাধ্যমে তাদের হাতে এ সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়।

শহীদ শিল্পগোষ্ঠী ৯ম বছরে পদার্পণ, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ন জয়ন্তী উপলক্ষে অনুষ্ঠানে তরুণ রাসেলের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন, করিম হাসান খান সভাপতি, শহীদ শিল্পীগোষ্ঠী।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় বিচারপতি, বিচারপতি কে, এম, কামরুল কাদের বাংলাদেশ সুপ্রীমকোর্ট, হাইকোর্ট বিভাগ, ঢাকা। অনুষ্ঠানের উদ্ভোধন করেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর আলতাফ হোসেন সরকার আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ফিজিও থ্যারাপিষ্ট, সভাপতি, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন (বিএমজেএফ)।

বিশেষ অতিথি ছিলেন এ, এস, এম নূরুল আজম বাবলু, চেয়ারম্যান আহম্মদ আলী সরকার স্মৃতি সংঘ। মোঃ শাহ আলম পরিচালক (উপসচিব) বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। মোঃ মতিয়র রহমান ডিজেল, প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব ও নির্বাহী পরিচালক বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন (বিএমজেএফ)।রুপু খান, বিশিষ্ঠ সঙ্গীতশিল্পী লায়ন মোঃ গাজী আলম ভূঁইয়া, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বাউবি ছাত্র ঐক্য পরিষদ।

অনুষ্ঠানে সম্মাননাপ্রাপ্ত সবাইকে ক্রেস্ট ও সনদপত্র দেওয়া হয়। আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও শুদ্ধ সংগীতে নিবেদিত এই স্লোগোনে প্রতিষ্ঠিত শহীদ শিল্পীগোষ্ঠী প্রতিবছরই সমাজের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে অসামান্য অবদান রাখার জন্যে এই সম্মাননা প্রদান করবে। মুজিবশতবর্ষ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ‘চিরঞ্জীব বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা’ স্মরণিকা প্রকাশসহ আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে কে এম চাঁদ মিয়ার কথাও সুরে প্রথমে আমাদের জন্মভূমি মা এই গান দিয়ে পরিবেশনা শুরু হয়। পরে একক গান পরিবেশন করেন মো: শহিদুল্লাহ, তিনি গেয়ে শোনান স্বরুপ তুই বিনে, আকরাম হোসেন, আরিফুল, ফাইজা, অথৈই, ইশানা ও মনিরা ইসলাম, তানজিল বিশ্বাস গান পরিবেশন করেন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক পাঠিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

AllEscort