মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২
Google search engine
HomeFeatureসোনারগাঁয়ে নৌকার ক্যাম্পে ভাংচুর ও আগুন দেওয়ার ঘটনায় ২৯ জনের নামে মামলা

সোনারগাঁয়ে নৌকার ক্যাম্পে ভাংচুর ও আগুন দেওয়ার ঘটনায় ২৯ জনের নামে মামলা

৪র্থ ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আল আমিন সরকারের দামোদরদী এলাকায় নৌকার ক্যাম্প ভাংচুর ও আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় ২৯ জনের নাম উল্লেখ্য করে আর অজ্ঞাত ২০জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে সোনারগাঁ থানায় বাচ্চু সরকার নামের এক জন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। যাহার নং-২৮/ তারিখঃ ২১/১২/২১ইং। মামলা দায়ের পর নির্বাচনী এলাকায় ভোটারদের মাঝে আতংক বিরাজ করছেন। এঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ২৬ ডিসেম্বর বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

জানা যায়, উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আল আমিন সরকারের প্রতিদ্ব›দ্বী স্বতস্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে মাহবুব হোসেন সরকার ও আরেক স্বতস্ত্র প্রার্থী ঘোড়া প্রতীকে ডাঃ আঃ রউফ। নির্বাচনী মাঠে নৌকার প্রার্থীর প্রচারণা বাঁধা, পোস্টার ছিড়ে ফেলা, প্রাণ নাশের হুমকিসহ নির্বাচন থেকে সড়ে যেতে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীত্তি প্রতিনিয়ত দিয়ে যাচ্ছে দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী ও তার কর্মীরা। এছাড়া তারা লাঠিসোটাসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় মহড়া দিয়ে থাকে। গত রবিবার রাতে দামোদরদী এলাকায় নৌকার ক্যাম্প ভাংচুর করে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্দেশে তাদের কর্মীসমর্থকরা এমন অভিযোগ করেছেন নৌকা প্রার্থী আল আমিন সরকার। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে নৌকা প্রার্থী আল আমিন সরকারের ছোট ভাই বাচ্চু সরকার বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় ২৯ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ২০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়ের পর নির্বাচনী এলাকায় ভোটারদের মাঝে আতংক বিরাজ করছেন।

এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী ঘোড়া প্রতীকে ডাঃ আঃ রউফ তার কর্মী সমর্থকের উপর হামলা ও পোস্টার ছিড়ার ঘটনায় বুধবার সকালে নৌকার প্রার্থীর কর্মীদের বিরুদ্ধে নিজেই বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, নৌকার ক্যাম্পে ভাংচুর ও আগুন দেওয়ার ঘটনায় মামলা নেওয়া হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যহত রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) গোলাম মুস্তাফা মুন্ন বলেন, নির্বাচন শতভাগ অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে। যারা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জরিত থাকবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ভোট গ্রহনের দিন ভোটারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক পাঠিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

AllEscort